সরিষার তেল ব্যবহারে কোন স্বাস্থ্য ঝুঁকি আছে কিনা।

‘Mustard oil has health risks’ নামে ১০ জুন ২০১২ একটি লেখা প্রকাশ করা হয়।
ডা. মনচন্দের মতে, সরিষার তেলে ইউরুসিক এসিড রয়েছে যা স্বাস্থ্য ঝুঁকির কারণ হতে পারে। এখন মনে প্রশ্ন আসতে পারে ইউরুসিক এসিড কি? ইউরুসিক এসিড হলো উদ্ভিজ্জ তেলে উপস্থিত এক ধরনের প্রাকৃতিক দূষিত পদার্থ।
সরিষার তেল ইইউ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং কানাডায় ভোজ্য/রান্নায় ব্যবহারের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে, মূলত এই ইউরুসিক এসিডের কারণে।


ইউএসএফডিএ – এর মতে, সরিষার তেল “শুধুমাত্র বাহ্যিক ব্যবহারের জন্য ঠিক আছে” অর্থাৎ ত্বকের যত্নে আপনি সরিষার তেল গায়ে মাখতে পারেন।


ইউরুসিক এসিড গ্রহণের ফলে হার্টে ক্ষতিকারক চর্বি জমে এতে হৃদরোগের ঝুকি বেড়ে যায় অনেকখানি, তাছাড়া ফুসফুস ক্যান্সার এর প্রবণতাও বহুলাংশে বেড়ে যায় এবং রক্তাল্পতা দেখা যায়।


১৯৯৮ সালে দিল্লিতে অতিরিক্ত মাত্রায় হৃদরোগ বেড়ে যাওয়ায় সরিষার তেল নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। উল্লেখ্য আর্টিকেলথেকে এটা পরিষ্কার যে, বৈজ্ঞানিক এমন কোনো ভিত্তি নেই যেটা প্রমাণ করতে পারে যে সরিষার তেল হৃদরোগের ঝুঁকি 70% এরও কমিয়ে দিতে পারে। কিন্তু সরিষার তেলের গড় 47% ইউরুসিক এসিড রয়েছে যা আপনার স্বাস্থ্য ঝুঁকির কারণ হতে পারে।
অতএব, সরিষার তেলের ব্যবহারে সচেতন হতে হবে। রান্নাতে সরিষার তেল ব্যবহার করা একেবারে গ্রহণযোগ্য হবে না। সামান্য পরিমাণে ভর্তা অর চাইলে ত্বকের যত্ন অথবা চুলে ব্যবহার করতে পারেন।


মূল আর্টিকেল লিংক:
https://timesofindia.indiatimes.com/…/arti…/13981428.cms

Author: Afroza Riju Khatun

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Shopping Cart